স্কুল গেইটের জলপাই আঁচার

October 25, 2017 5:49 am
স্কুল গেইটের জলপাই আঁচার

স্কুল গেইটের জলপাই আঁচার

স্কুল গেইটের জলপাই আঁচার

রেসিপি ও ছবিঃ উম্মে সেলিম আলিশবা

জলপাই আঁচার এর রেসিপিটি দেখতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।

স্কুল গেটের সামনে মামারা আচার, চটপটি নিয়ে বসতো, আর স্কুলের ছেলে-মেয়েরা সেখানে হুমরি খেয়ে পড়তো। সেকথা নিশ্চই আমাদের সবার জানা। আমরা সবাই মিস করি সেই দিন গুলো, আর মামাদের বানানো সেই মজার আচার।

আজ আপনাদের জন্য আমরা নিয়ে এসেছি সেই স্বাদের জলপাই আঁচার রেসিপি। যা আমার রেসিপিতে তৈরি করলে সেই স্বাদ পাবেন।

বিস্তারিত দেখুন ভিডিওতে… 

আমড়ার আচার তৈরির সহজ রেসিপি

September 7, 2017 2:25 am
আমড়ার আচার তৈরির সহজ রেসিপি

আমড়ার আচার তৈরির সহজ রেসিপি

আমড়ার আচার তৈরির সহজ রেসিপি

রেসিপি ও ছবিঃ রওনক সিনহা

ভিডিওতে দেখতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।

উপকরনঃ

  • হাফ কেজি আমড়া
  • লবন
  • লেবু
  • তেল
  • দারুচিনি
  • তেজপাতা
  • কালোজিরা
  • আস্তো জিড়া
  • রসুন
  • পেয়াজ বাটা
  • আদা বাটা
  • শুকনো মরিচ
  • শরিষা বাটা
  • জিড়া গুড়ো
  • মরিচের গুড়ো
  • হলুদের গুড়ো

বিস্তারিত রেসিপি ভিডিওতে দেওয়া আছে…

Video Recipe:

টক-ঝাল-মিষ্টি আমড়ার আচার

August 3, 2017 6:50 pm
টক-ঝাল-মিষ্টি আমড়ার আচার

 

টক-ঝাল-মিষ্টি আমড়ার আচার

টক-ঝাল-মিষ্টি আমড়ার আচার

বিভিন্ন রকমের আচারের মধ্যে আমড়ার আচার অন্যতম। আমড়া দিয়ে তৈরি টক-মিষ্টি-ঝাল আচার খেতে খুবই সুস্বাদু ও মজাদার।

আমড়ার আচার এর ভিডিও দেখতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন। 

উপকরণ :

  • – আমড়া ২ কেজি
  • – সরিষার তেল আধা লিটার
  • – আদা-রসুন বাটা ৬ টেবিল চামচ
  • – লবণ পরিমাণ মতো
  • – চিনি স্বাদ অনুযায়ী
  • – কাটা শুকনামরিচ ৪ থেকে ৫টি
  • – আদাকুচি ২ টেবিল চামচ
  • – পাঁচফোড়ন ২ চা-চামচ
  • – মরিচ গুঁড়ো ২ চা-চামচ

যেভাবে করবেন :

* আমড়া ধুয়ে খোসা ছিলে ফালি করে কাটুন। এবার চিনি বাদে তেল, আদা-রসুন, মসলা মেখে আমড়া ১ দিন রোদে শুকিয়ে নিতে হবে। চুলায় পাত্রে তেল দিয়ে পাঁচফোড়ন ভাজতে হবে।

* তারপর বাকি সব মশলা সামান্য পানি দিয়ে ভালো মতন কষিয়ে নিন। পানি ফুটে উঠলে মাখানো আমড়া দিয়ে কষাতে থাকুন।

* ভালোমতো কষিয়ে চিনি দিয়ে মাঝারি আঁচে রান্না করুন। তেল আমড়ার ওপরে উঠলে নামিয়ে আনুন মজার স্বাদের আমড়া আচার।

* এই আচার পোলাও, বিরিয়ানি, খিচুরি অথবা ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করতে পারেন। চাইলে শুধুও খেতে পারেন।

* বাষ্প নিরোধী কাঁচের বয়ামে সংরক্ষণ করলে আচার অনেকদিন পর্যন্ত ভালো রাখা সম্ভব। তাই এখনি বানিয়ে নিন মজাদার আমড়ার আচার।

আমসত্ত্ব / ম্যাংগো রোল-আপস

June 1, 2017 12:51 pm
আমসত্ত্ব / ম্যাংগো রোল-আপস

আমসত্ত্ব / ম্যাংগো রোল-আপস

আমসত্ত্ব / ম্যাংগো রোল-আপস

রেসিপি ও ছবিঃ ইলোরা আউয়াল

রোদে শুকানোর কোন ঝামেলাই নেই,২/৩ ঘন্টায় রেডি হয়ে যায়। আমার খুবই প্রিয় একটা জিনিষ এই আমসত্ত্ব। প্রতি বছর সামারে আমি স্ট্রবেরী আর আম দিয়ে এগুলো করি। স্ট্রবেরী রোল-আপস্ আমার মেয়েদের ভীষণ পছন্দের। চলো এবার দেখে নেই কি করে বানাতে হয় এই আমসত্ত্ব।

উপকরণঃ

  • কাঁচা আম – ৩/৪ টা (আমি আমার হিসেবে বলছি,তোমরা নিজেদের আন্দাজে বাড়িয়ে কমিয়ে নিতে পারবে)
  • চিনি – ২/৩ টে.চামচ
  • লবন – সামান্য

প্রস্তুত প্রণালীঃ

প্রথমে আম গুলো ছিলে ছোট ছোট করে কেটে চিনি আর লবন দিয়ে ব্ল্যান্ড করে ছেঁকে নেবে (যদি আমে আঁশ থাকে তবে ছাঁকতে হবে) এখন চুলায় প্যান দিয়ে আমের মিশ্রনটাকে ১০/১২ মিনিট জ্বাল দিয়ে এরপর একটা বেকিং ট্রে তে ওয়াক্স পেপার বিছিয়ে আমের মিশ্রনটা সমান করে বিছিয়ে দেবে।

তারপর ২৫০° প্রিহিটেড ওভেনে ২/৩ ঘন্টা বেক করবে,অথবা যার যার ওভেনের টেম্পারেচার অনুযায়ী বেক করবে (সময় কম বেশীও লাগতে পারে) হাত দিয়ে ধরে দেখবে,উপরটা শুকিয়ে গেলে বুঝবে হয়ে গিয়েছে ইয়াম্মি,” আমসত্ত্ব “।

৬টি আমের আচারের রেসিপি একসাথে

May 3, 2017 4:17 pm
৬টি আমের আচারের রেসিপি একসাথে

৬টি আমের আচারের রেসিপি একসাথে

৬টি আমের আচারের রেসিপি একসাথে

টক-ঝাল-মিষ্টি কাঁচা আমের আচার বানানোর এই তো সময়। আর সারা বছরই বাড়িতে রেখে খাওয়া হবে এই আচার। তাই এখনই ৬টি আমার আচারের রেসিপি দেখে আচার তৈরি করুন নিজের পছন্দ মত।

আচারের ভিডিও দেখতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।

কাঁচা আমের নকশী আচার

ছবি ও রেসিপিঃ মুহসিনা তাবাসসুম

উপকরন :-

কাঁচা আম – ৫-৬ টি
চিনি – স্বাদ অনুযায়ী
লবন – পরিমান মতো
আদা + পেয়াজ + জিরা+ রসুন বাটা-১ + ১/২ টেবিল চামচ
চাট মশলা – ১ টেবিল চামচ ( আমি টাইগারের চটপটির মশলা নিয়েছি )
পাঁচফোড়ন হালকা ভেজে গুঁড়া করা – ১ টেবিল চামচ
শুকনা মরিচ হালকা ভেজে গুঁড়া করা – স্বাদ অনুযায়ী
বিট লবন – সামান্য
সরিষার তেল – ২-৩ টেবিল চামচ
আচারের তেল – ১ -২ টেবিল চামচ

প্রনালি :-

– আমের খোসা ছিলে ধুয়ে ছোট ছোট টুকরা করে পানি দিয়ে সিদ্ধ করে নিন । সিদ্ধ করার সময় লবন দিন । সিদ্ধ করে নিলে আম কম টক লাগবে। সিদ্ধ হলে ঝাঁজরিতে আম ঢেলে পানি ফেলে দিন ।৩-৪ ঘন্টা পানি ঝরিয়ে নিন ।

– এবার প্যানে সরিষার তেল দিয়ে আম দিয়ে দিন । আমের বিচি শক্ত হয়ে গেলে ব্লেন্ডারের ব্লেন্ড করে প্লাস্টিকের ছাকনী দিয়ে ছেঁকে নিন। আমার আমের আটি নরম ছিলো তাই আমি সরাসরি তেলে দিয়ে দিয়েছি ।

– তেলে দেয়ার পর চিনি দিয়ে নাড়তে থাকুন । প্রথমে হিট জোরে দিন । পানি শুকিয়ে আসলে হিট কমিয়ে দিবেন । চিনির সাথে বাটা মশলাও দিয়ে দিন । খুব ঘন ঘন নাড়তে থাকুন ।তানাহলে নিচে পোড়া লেগে যাবে । পোড়া লেগে গেলে কড়াই চেঞ্জ করে অন্য কড়াই নিন । সামান্য পুড়ে গেলেও আচার তিতা লাগবে।

– ঘন হয়ে আসলে নামিয়ে ঠাণ্ডা করুন । হাতে নিয়ে চেপে চেপে যদি দেখেন বল তৈরি করতে পারছেন তাহলে হয়ে গিয়েছে । আমি দুইদিনে জ্বাল দিয়ে ঘন করে নিয়েছি । আমের আচার নামানোর আগে পাঁচফোড়ন ও মরিচ গুঁড়া ছিটিয়ে নেড়েচেড়ে নামাবেন।

– বেশি শক্ত করবেন না । বল তৈরি করার মতো করতে পারলেই নামিয়ে নিবেন। এই আচার ঠাণ্ডা হলে আরো শক্ত হয়ে যাবে। ঠাণ্ডা হলে সাথে সামান্য বিট লবন ও চাট মশলা দিয়ে মাখিয়ে নরম করে নিন । এবার সাঁচেও হাতে আচারের তেল দিয়ে বল গুলো মাঝখানে দিয়ে ভাল করে চারিদিক চাপ দিয়ে নকশা করুন ।

আমের কাশ্মীরি আচার রেসিপি

ছবি ও রেসিপিঃ মুহসিনা তাবাসসুম

উপকরণ:

কাঁচা আম – ১কেজি
চিনি – স্বাদ অনুযায়ী
সিরকা- ১ কাপ + সামান্য পানি যদি লাগে
আদা মিহি কুচি – ১ টেবিল চামচ
শুকনা মরিচ মিহি কুচি – ১-২ টি (বা স্বাদ অনুযায়ী )
লেবুর রস – ১ টেবিল চামচ

প্রস্তুত প্রণালী:

– আমের খোসা ফেলে লম্বা করে কেটে চুন বা ফিটকারির পানিতে ভিজিয়ে রাখবেন ১-২ ঘন্টা। তারপর ভালোকরে পানি ঝড়িয়ে নিন । একটি প্যানে চিনি ও সিরকা দিয়ে দিন । ফুটে উঠলে আদা কুচি দিয়ে দিন ।

– এবার আম দিয়ে ঢেকে সিদ্ধ করুন । বেশি সিদ্ধ করবেন না আমের পিস আস্ত রাখতে হবে । সিদ্ধ হয়ে গেলে পানি শুকিয়ে নিন।

– আমের রং সোনালি হলে শুকনা মরিচ দিয়ে দিন । চিনির পানি শুকিয়ে আম সোনালি কালার হলেই নামিয়ে নিন । ঠাণ্ডা করে বয়ামে ভরে রাখুন ।

কাঁচা আমের আচার

উপকরণ:

আম ১০টা,
সরিষার বাটা ২ চামচ,
পাঁচফোড়ন বাটা ১ চামচ,
সিরকা আধা কাপ,
হলুদ গুঁড়া ১ চা-চামচ,
মরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ,
লবণ স্বাদমতো,
চিনি ১ কাপ,
তেজপাতা ২টা,
শুকনা মরিচ ৩টা,
সরিষার তেল ১ কাপ।

প্রণালি:

আম খোসাসহ টুকরো করে হলুদ ও লবণ মাখিয়ে ৮-১০ ঘণ্টা রোদে দিন। এবার হলুদ, মরিচ, সরষে, পাঁচফোড়ন ও অর্ধেক সিরকা আমের সঙ্গে মিশিয়ে আবার রোদে দিন।

শুকিয়ে এলে বাকি সিরকা, চিনি, তেজপাতা ও শুকনা মরিচ দিয়ে বোতলে ঢুকিয়ে রোদে দিন। তেল ভালোভাবে গরম করে ঠান্ডা হলে আচারের বোতলে ঢেলে কয়েক সপ্তাহ রোদে দিন।

আম – খেঁজুরের টক মিষ্টি আচার

ছবি ও রেসিপিঃ সাদিয়া খান চৌধুরী

উপকরণঃ

কাঁচা আম – ৩ টি
সরিষার তেল – আধা কাপ
শুকনো মরিচ – ৩ টি
পাঁচফোড়ন – এক থেকে দেড় টেবল চামচ
গুড় – আধা কাপ
চিনি – আধা কাপ
সরিষা – ১/৪ চা চামচ
খেজুর – আধা কাপ (গোটা বা কুচি যেভাবেই খুশি দিতে পারেন)
হলুদ – ১/৪ চা চামচ
মরিচ গুঁড়া – ১/৪ চা চামচ
লবণ – স্বাদমতো

প্রস্তুত প্রণালীঃ

– আমগুলো লম্বায় বড় বড় করে কাটুন। এবার কড়াইতে তেল গরম করে শুকনো মরিচের ফোঁড়ন দিন। এরপর সরিষা ও পাঁচফোড়ন দিয়ে দিন।

– এরপর আমগুলো ঢেলে দিন। কিছুক্ষণ নেড়ে পাঁচ মিনিট পর লবণ, হলুদ, খেঁজুর, গুড় ও চিনি দিয়ে দিন। পানি বের হলে শুকনো মরিচের গুঁড়া দিয়ে দশ থেকে পনেরো মিনিট একদম কম আঁচে জ্বাল দিন।

– আম সেদ্ধ হয়ে নরম হলে চুলা বন্ধ করে দিন। ঠান্ডা হলে নামিয়ে পরিবেশন করুন আম – খেঁজুরের টক মিষ্টি আচার ।

কাচাঁ আম ও গুড়ের টক মিষ্টি আচার

ছবি ও রেসিপিঃ নাদিয়া নাতাশা

উপকরনঃ

আম ৬টা
গুড় ১ ১/২ কাপ
সরিষা তেল ১ কাপ
পাচফোড়ন ২/৩ চা চামচ
হলুদ গুড়া ১ চামচ
মরিচ গুড়া ১ চা চামচ
শুকনা মরিচ কুচি ২ চা চামচ
তেজ পাতা ২ টা
টালা জিরা গুড়া ১ চা চামচ
সরিষা বাটা ১ চা চামচ
লবন পরিমান মত

প্রস্তুত প্রনালি:

– আম ছোলা সহ ছোট করে টুকরা করে কেটে সামান্য হলুদ ও লবন মেখে রোদে শুকাতে হবে ২ দিন।

– এবার প্যানে তেল দিয়ে তাতে সব মশলা দিয়ে কসিয়ে গুড় দিয়ে দিন। কসানো হলে আম দিয়ে চুলার আচ কমিয়ে দিন। হালকা আচে আস্তে আস্তে নেড়ে বেশ খানিকটা সময় ধরে রান্না করুন।

– আম নরম হলে নামিয়ে নিন। ঠান্ডা করে কাচের বোয়ামে ভরুন, ফ্রিজে রেখে বেশ কিছুদিন খাওয়া যায়। চাইলে বেশি করে তেল দিয়েও সংরখন করা যায় মজার স্বাদের কাচাঁ আম গুড়ের টক মিষ্টি আচার ।

আমের ঝুরি আচার রেসিপি

ছবি ও রেসিপিঃ মুহসিনা তাবাসসুম

উপকরন :-

কাচা আম – ১ কেজি
পেয়াজ মিহি কুচি – ৩/৪ কাপ
কাঁচামরিচ আস্ত (অল্প চিরে নেয়া )- ৫-৬ টি
আস্ত রসুন – ১০-১২ টি (ছোট )
চিনি – সামান্য
লবন + হলুদ – পরিমান মতো
আদা + রসুন বাটা
জিরা + ধনিয়া + সরিষা + পাঁচফোড়ন বাটা
মরিচ গুড়া
এলাচ + তেজপাতা + দারুচিনি বাটা – ১ চাচামচ (ঐচ্ছিক )
বিট লবন – ১-২ টেবিল চামচ

তেলে দেবার জন্য :-

সরিষার তেল – পরিমান মতো
পাঁচফোড়ন – ১ চিমটী
শুকনা মরিচ – ৩-৪ টি
সিরকা – ৩-৪ টেবিল চামচ

প্রনালি :-

– আম ধুয়ে পানি ঝরিয়ে গ্রেটার দিয়ে গ্রেট করে নিন । গ্রেটারের ছোট দিক দিয়ে গ্রেট করতে হবে । সব মশলা মাখিয়ে ছোট ছিদ্র যুক্ত ঝুড়িতে ছড়িয়ে রোদে দিন । সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৬ টার মধ্যে শুকিয়ে যাবার কথা । বেশি ভেজা থাকলে পরের দিন আবারো রোদে দিন ।

 

– এই আচার ভাল ভাবে শুকাতে পারলে টেস্ট পাওয়া যায় । এই আচারের শুকানোটাই আসল ।

তেলে দেয়ার পদ্ধতি :-

– তেল প্যানে দিয়ে গরম করে নিন মাঝারি আঁচে । যখন দেখবেন তেলের উপরে হালকা ধোয়া উঠছে তখনি নামিয়ে নিন । ২-৩ মিনিট পরে পাঁচফোড়ন ও মরিচ ভেঙ্গে দিয়ে দিন ।

– ২-৩ মিনিট পরে আচার দিয়ে দিন ও সিরকা । তেল বেশি গরম থাকতে সিরকা দিবেন না তাহলে ছিটে আসবে আর আচার ও বেশি গরম তেলে দিলে মচমচা হয়ে যাবে । ঠাণ্ডা হয়ে গেলে পরিষ্কার কাচের বয়ামে রাখুন ।

টিপস :-

– তেল সবসময় আচারের উপরে উঠে থাকলে আচার সহজে নস্ট হবে না । তেল দিয়ে সব সময় ডূবিয়ে রাখলে সিরকাও দেয়ার দরকার নেই । কাচের বয়ামে রাখলে আচার বেশিদিন ভাল থাকে ।

* আমি মশলা নিজের আন্দাজ মতো দেই তাই পরিমানপ টা দিতে পারলাম না । আমি একটু বেশি ই দেই কারন শুকিয়ে গেলে কমে যায় । কম দিতে চাইলে কম ও দিতে পারেন ।

  • আরো সুন্দর ও সুস্বাদু রেসিপি পেতে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিয়ে এক্টিভ থাকুন।

 

আমসত্ব তৈরি করবেন যেভাবে

April 26, 2017 3:46 am
আমসত্ব তৈরি করবেন যেভাবে

আমসত্ব তৈরি করবেন যেভাবে

আমসত্ব তৈরি করবেন যেভাবে

আম দিয়েই আমরা তৈরী করবো ছোট বড় সবারই জিভে জল আনা আমসত্ব।

জেনে নিন আমসত্ব বানানোর কৌশলঃ

উপকরণঃ

  • আম ৮-১০টি,
  • চিনি স্বাদমতো,
  • পাতলা কাপড়,
  • সর্ষের তেল প্রয়োজনমতো।

প্রণালিঃ

প্রথমে আমগুলোকে ভালো করে পরিস্কার পানিতে ধুয়ে নিন, এরপর আমের খোসা ছাড়িয়ে টুকরো করে একটি পাত্রে অল্প আঁচে জ্বাল দিতে থাকুন। আমগুলো যতক্ষণ চুলায় আছে ততক্ষণ পাত্রের তলা ঘেঁসে অনবরত নাড়ুন, নাহলে পাত্রের নিচে লেগে স্বাদ ও ঘ্রাণ নষ্ট হবে।

আমগুলি ভালো করে ফুটে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে রাখুন। এখন আমগুলো ভালো করে ঠাণ্ডা হলে পাতলা কাপড়ে ঢেলে ছেঁকে নিন। একটি ডালায় আরেকটি শুকনো পাতলা কাপড় বিছিয়ে ছেকে রাখা আমগুলো পাতলা করে ঢেলে কড়া রোদে শুকাতে দিন। শুকানোর পর আমের এই পরতের উপর খুবই অল্প করে সর্ষের তেল ব্রাশ করে তার উপর আবার ছেকে রাখা আমের প্লাপগুলো দিন। একইভাবে যতবার খুশি পরত দিতে পারেন, কিন্তু খেয়াল রাখবেন আগের পরতটি যেন ভালো করে শুকায়।

সব পরত দেয়া হলে চার- পাঁচদিন কড়া রোদে শুকিয়ে নিন। ভালমতো শুকিয়ে গেলেই আমসত্ব তৈরি হয়ে যাবে। এখন একে কাপড় থেকে আস্তে করে টেনে তুলে নিয়ে আপনার ইচ্ছেমতো ডিজাইনে কেটে রেখে দিতে পারেন পরবর্তী আমের ঋতু পর্যন্ত বা তার বেশি।

যারা মিষ্টি আমসত্ত পছন্দ করেন তারা আমগুলি কে জ্বাল দেয়ার সময়ই প্রয়োজন অনুযায়ী চিনি যোগ করে নিতে পারেন।