গর্ভধারণের সময় প্রতিটি নারী যে ৮ টি ভুল করেন

গর্ভধারণের সময় প্রতিটি নারী যে ৮ টি ভুল করেন

গর্ভধারণের সময় প্রতিটি নারী যে ৮ টি ভুল করেন

গর্ভধারণের (The time of pregnancy) বিষয়টি বিয়ের পর স্বামী স্ত্রী দুজনের মিলেই ঠিক করে নিয়ে থাকেন। নারীটি গৃহিণী হোক কিংবা কর্মজীবী নারীই হন না কেন গর্ভধারণের কথা ভাবার আগে কিছু জরুরী বিষয় জেনে নেয়া ভালো বলে মত প্রকাশ করেন গাইনোকলজিস্টরা। অন্তত গর্ভধারণের অন্তত ৩ মাস আগে থেকে পরিকল্পনা করে নিজেকে তৈরি করে নেয়াই বুদ্ধিমানের কাজ বলে মনে করেন ডাক্তারগন। আর এই ৩ মাসের পরিকল্পনার আগে জেনে নেয়া উচিত কিছু argent বিষয়।

১) ফলিক এসিড

ফলিক এসিড acid সাপ্লিমেন্ট খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এটি গর্ভের সন্তানের অস্বাভাবিকতা প্রতিরোধে সহায়তা করে। গর্ভধারণের কথা ভাবার অন্তত ৩ মাস আগে থেকে ৫ মিলিগ্রাম পরিমাণে ফলিক এসিড সাপ্লিমেন্ট নেয়া উচিত। তবে এই সম্পর্কে নারীর মেডিক্যাল history দেখে ডোজ নির্ণয় করানো প্রয়োজন।

২) গর্ভধারণের সময় ভ্রমণ

আপনি যখন pregnancy কথা ভাবছেন তখন গারিতে ভ্রমণের ব্যাপারটি নিয়ে চিন্তা না করলেও চলে, কিত্নু গর্ভবতী হয়ে যাওয়ার পর অনেক বেশী সতর্ক থাকা প্রয়োজন। ট্রেন বা গাড়িতে ভ্রমণ খুব বেশী ঝুঁকিপূর্ণ নয় কিন্তু প্রাথমিক পর্যায়ে প্লেনে ভ্রমণ এড়িয়ে যাওয়া উচিত। কসমিক রেডিয়েশন ও ডিকম্প্রেসনের ফলে প্লেনে ভ্রমণ অনাগত শিশুর জন্য ঝুঁকিপূর্ণ।

৩) ওজনের দিকে নজর দিন

গর্ভধারণের আগে নিজের ওজন কমানোর চেষ্টা করুন যতোটা সম্ভব। আগে থেকেই কোনো ডায়েটেশিয়ানের সাথে কথা বলে ওজন কমানোর চেষ্টা করে তারপর গর্ভধারণের কথা ভেবে নিন। আর pregnant হয়ে যাওয়ার পর কখনোই ওজন কমানোর কথা চিন্তা করবেন না। প্রতি সপ্তাহে নিজের weight test করবেন।

৪) খাদ্যতালিকা ঝুকিমুক্ত রাখুন

গর্ভধারণের আগে থেকেই নিজের দেহকে সুস্থ রাখার জন্য নিজের খাদ্যতালিকার দিকে নজর দিন। দেহে ক্ষতিকর টক্সিন জমে থাকে এমন খাবার থেকে নিজেকে সরিয়ে রাখুন যতোটা সম্ভব। এবং গর্ভধারণের পর থেকে কার্বোহাইড্রেট কমিয়ে প্রোটিন, ফাইবার ইত্যাদির দিকে বেশী জোর দিন। তাজা ফলমূল ও vegetable রাখুন খাদ্যতালিকায়।

৫) ধূমপান ও মদ্যপান বাদ দিন

অনেকেই আছেন যাদের এই বাজে অভ্যাস রয়েছে। যদি গর্ভধারণের কথা চিন্তা করেন অবশ্যই এই দুটি বাজে অভ্যাস দূর করে দিন আজই।

৬) ক্যাফেইন থেকে দূরে থাকুন

গর্ভধারণের কথা ভাবা শুরু করলে প্রথমেই খাদ্যতালিকা থেকে ক্যাফেইনের পরিমাণ কমিয়ে ফেলুন। এরপর Pregnant হওয়ার পর প্রয়োজন না হলে ক্যাফেইন থেকে দূরে থাকাই ভালো।

৭) টিকা সম্পর্কে জেনে রাখু

গর্ভধারণের পূর্বেই জেনে নিন মায়ের জন্য কি কি টিকা দেয়া জরুরী। প্রয়োজনীয় টিকা দেয়ার অন্তত ১ মাস পর গর্ভধারণের চেষ্টা করা উচিত। এরপর গর্ভধারণের পর নিয়ম মেনে মায়ের জন্য প্রযোজ্য প্রতিটি টিকা সতর্কতার সাথে দিয়ে দেয়া বুদ্ধিমানের কাজ।

৮) অকাল গর্ভপাত সম্পর্কে ধারণা নিয়ে নিন

গর্ভধারণের পূর্বেই জেনে নিন আপনার জেনেটিক্স কি বলে। Abortion অনেকটা জেনেটিক কারণেও ঘটে থাকে। এছাড়া ভালো একজন গাইনোকলজিস্টের সাথে পরামর্শ করে আরও তথ্য জেনে নেয়া চাল।

এই রেসিপি সম্পর্কে আপনার মন্তব্য লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *