ফলি মাছের কোফতা কারি

ফলি মাছের কোফতা কারি

ফলি মাছের কোফতা কারি

রেসিপি ও ছবিঃ শামীমা সুলতানা

কোফতার জন্য উপকরণঃ

  • ফলি মাছ (মাঝারি) -৪ টি।
  • পেয়াজ বেরেসতা -১ /২ কাপ।
  • কাঁচা মরিচ কুচি -২ টি বা যার যার পচ্ছন্দ মত।
  • লেবুর রস -১ চা চামচ।
  • লবন- পরিমান মতো।

কারির জন্যঃ

  • টমেটো কুচি -আধা কাপ।
  • মটরশুটি -১ /৪ কাপ।
  • পেয়াজ বাটা -২ টেবিল চামচ।
  • রসুন বাটা -১ চা চামচ।
  • আদা বাটা -১ চা চামচ।
  • জিরা গুড়া -১ চা চামচ।
  • ধনে গুড়া -১ চা চামচ।
  • মরিচ গুড়া -১ চা চামচ।
  • লবন -সবাদ মতো।
  • হলুদ -পরিমাণ মতো।
  • কাঁচা মরিচ ফালি -৪ /৫ টি এটা অপশনাল কেউ দিতে পারেন কেউ নাও দিতে পারেন।
  • লেবুর রস – ১ চা চামচ।
  • ধনে পাতা কুচি -১ টেবিল চামচ।
  • তেল -প্রয়োজন মতো।

প্রস্তুত প্রণালীঃ

প্রথমে ফলি মাছ কেটে ভালোভাবে ধুয়ে নিন।মাছের পেটের ময়লা ভালোভাবে পরিস্কার করে নিন।আবারো ধুয়ে নিন।এবার মাছ গুলি সমতল কিছুর উপর রেখে অন্য কিছু দিয়ে পিঠের দিক থেকে আস্তে আস্তে ছেঁচা দিতে হবে (আমি শিলপাটায় ছেঁচে নিয়েছি)। এভাবে ছেঁচা দিলে পেটের দিক থেকে মাছের ভিতরের অংশ গুলো বেরিয়ে আসবে।

এবার মাছের পেটের চামড়া আস্তে আস্তে খুলে নিন এবং মাছ গুলো চামচ দিয়ে ছাড়িয়ে নিন।চামড়া টা আলাদা করে রাখুন।এবার কাটা বেছে নিন। কাটা বাছা হলে মাছ বেটে নিন। বাটার পর একদম ছোট কাটা গুলো ও বেরিয়ে আসবে,সেগুলি বেছে নিন।

এবার বাটা মাছের সাথে কোফতা বানানোর উপকরণ গুলি একসাথে মেখে নিন। মাখানো মাছ খুব যত্ন করে মাছের চামড়ার ভিতর ঢুকিয়ে আস্ত মাছের শেপ করে নিন এবং সুতা দিয়ে পেচিয়ে নিন।

প্যানে তেল গরম করে সুতা পেচানো মাছ মাঝারি জ্বালে ভেজে নিন,এপিঠ ওপিঠ করে। ভাজা মাছ ঠানডা হলে সুতা কেটে ছাড়িয়ে নিন।

পাত্রে তেল দিয়ে প্রথমে পেয়াজ বাটা দিয়ে ভেজে নিন এবং পর্যায় ক্রমে সব বাটা ও গুড়া মশলা দিন।লবন দিন।সামান্য পানি দিয়ে মশলা কষুণ।টেমেটো কুচি আর মটরশুটি দিন,কিছুসময় নেড়ে নিয়ে ১ কাপ পানি দিন।চুলার আঁচ মাঝারি রাখুন।পানি কমে আসলে মাছের কোফতা দিন (মাছের কোফতা আস্ত বা কেটে ছোট করে দিতে পারেন)। ঝোল মাখা মাখা হলে লেবুর রস,ধনে পাতা, কাঁচা মরিচ ফালি দিন।নামিয়ে পরিবেশন করুন ভাত বা সাদা পোলাওর সাথে।

**কোফতা রান্না না করে ছোট করে কেটে বিকালের নাস্তায় বা পোলাওর সাথে টিকিয়া বা কাবাবের মতো খাওয়া যায়।

  • আরো সুন্দর ও সুস্বাদু রেসিপি পেতে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিয়ে এক্টিভ থাকুন। 

এই রেসিপি সম্পর্কে আপনার মন্তব্য লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *