পুরান ঢাকার স্টাইলে খাসির বিরিয়ানি

পুরান ঢাকার স্টাইলে খাসির বিরিয়ানি

পুরান ঢাকার স্টাইলে খাসির বিরিয়ানি

রেসিপি ও ছবিঃ নুসরাত শারমিন

মাংসের জন্য উপকরণ:

  • খাসির মাংস : ১ কেজি
  • টকদই+ মিষ্টি দই: ১ কাপ
  • আদা বাটা : ১টেবিল চামচ
  • রসুন বাটা : ১ টেবিল চামচ
  • পেয়াজ কুচি : এক কাপ
  • শাহি জিরাবাটা :১ চা চামচ
  • দারুচিনি ৪ টুকরা, এলাচ ৪টি, লবঙ্গ ৬টি,আস্ত গোলমরিচ ৮/১০টি তেজপাতা ২/৩ টি
  • আলুবোখারা: ৬/৮ টা
  • লবণ :স্বাদমতো
  • তেল :আধা কাপ
  • বেরেস্তা আধা কাপ
  • গরম মসলার গুঁড়া :১ চা চামচ
  • জায়ফল-জয়ত্রি গুঁড়া :আধা চা-চামচ।

পোলাওয়ের জন্যঃ

  • পোলাও এর চাল : ৫০০ গ্রাম
  • ঘি : ৩ টেবিল চামচ
  • আদাবাটা :১ চা -চামচ
  • পোস্তদানাবাটা :১ চা চামচ
  • বাদামবাটা : ১ চা চামচ
  • দুধ :১/২ কাপ
  • লবণ :স্বাদমতো
  • বেরেস্তা: হাফ কাপ
  • কিশমিশ ১ টেবিল-চামচ,
  • পেস্তা বাদামকুচি ১ টেবিল-চামচ
  • দারচিনি ও এলাচ ২ টা
  • কেওড়ার জল ১ টে চামচ
  • জাফরান : সামান্য
  • কাচামরিচ ৫/৬ টা ।

সাজাবার জন্যঃ

  • পেয়াজ বেরেস্তা
  • বাদাম কুচি।

প্রণালীঃ

-মাংস ধুয়ে পানি ঝরিয়ে এতে আদা রসুন বাটা,দই,সব আস্ত গরম মসলা,তেজপাতা, আলু বোরখা, শাহি জিরা বাটা ও লবন দিয়ে মাখিয়ে ২/৩ ঘণ্টা রেখে দিতে হবে।

-একটি পাত্রে তেল দিয়ে, তেল টা গরম হলে এতে পেয়াজ কুচি একটু লাল করে ভেজে মেরিনেট করা মাংস দিয়ে মাঝারি আঁচে কষিয়ে পরিমাণমতো পানি দিয়ে মাংস রান্না করতে হবে।

-মাংস সেদ্ধ হয়ে পানি শুকিয়ে এলে বেরেস্তা, জায়ফল-জয়ত্রি গুঁড়া, গরম মসলার গুঁড়া দিয়ে নামিয়ে ফেলতে হবে।

-এবার প্রথমে চাল ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখতে হবে এবং কেওড়ার জলে জাফরান ভিজিয়ে রাখতে হবে।

-এখন অন্য হাঁড়িতে ঘি গরম করে সব মসলা কষিয়ে চাল দিয়ে ভাজুন।এবার এতে পরিমাণ মত গরম পানি ( ২ কাপ চালে ৪ কাপ পানি) ৬) ও লবণ দিয়ে ঢেকে দিতে হবে।

-পানি কমে এলে দুধের সঙ্গে পোস্তদানা ও বাদামবাটা গুলিয়ে পোলাওয়ে দিয়ে অল্প আঁচে ২০ মিনিট রাখতে হবে।

-এবার হাঁড়িতে অর্ধেক পোলাও উঠিয়ে দুই স্তরে মাংস, পোলাও, কাঁচামরিচ বেরেস্তা, কিশমিশ, পেস্তা বাদাম, কেওড়ার জলে ভেজানো জাফরান দিয়ে সাজিয়ে হাঁড়ির মুখ বন্ধ করে ৩০ মিনিট দমে রাখতে হবে।

-এখন নামিয়ে সুন্দর ভাবে পরিবেশন করুন দারুন মজাদার পুরান ঢাকার স্টাইলে খাসির বিরিয়ানি ।

  • আরো সুন্দর ও সুস্বাদু রেসিপি পেতে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিয়ে এক্টিভ থাকুন।

এই রেসিপি সম্পর্কে আপনার মন্তব্য লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *